• শুক্রবার, ০২ জুন ২০২৩, ০৮:২৭ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
রবি রশ্মির উদ্যোগে ‘এসো শ্যামল সুন্দর’ শীর্ষক সংগীতানুষ্ঠান ঢাবি উত্তরবঙ্গ চাকরিজীবী কল্যাণ পরিষদের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত ঢাবিতে আনঃহল দাবা ও ক্যারাম প্রতিযোগিতার উদ্বোধন বঙ্গবন্ধুর জীবন ও দর্শন থেকে শিক্ষা নিতে হবে: ঢাবি ভিসি ঢাবির শহীদুল্লাহ হল প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মাথা ঘুরে পড়ে ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু বম জনগোষ্ঠীর উপর হামলা, বিচারের দাবি গণতান্ত্রিক ছাত্র জোটের ঢাবি শিক্ষার্থী হত্যা চেষ্টার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ কর্মসূচি আমাদের শিল্প সংস্কৃতিকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র হচ্ছে:সৈকত ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস ঠেকানো গিয়েছে :ঢাবি ভিসি

‘স্বাধীনতাকে অবমূল্যায়ন করবে এমন স্বাধীনতা কোন নাগরিকের থাকতে পারে না’

dunews
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৬ এপ্রিল, ২০২৩



যত বড় সাংবাদিক হোক কিংবা যত বড় সংবাদপত্র হোক না কেন স্বাধীনতাকে অবমূল্যায়ন করবে, কটাক্ষ করবে, উপহাস করবে এমন স্বাধীনতা কোন নাগরিকের থাকতে পারে না। আজ ৬ এপ্রিল সকাল ১১ টায় রাজধানীর শহীদ মিনারে স্বাধীনতা দিবসে প্রথম আলোতে প্রকাশিত আলোচিত প্রতিবেদনটিকে ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি ষড়যন্ত্রমূলক’ আখ্যা দিয়ে পত্রিকাটির নিবন্ধন বাতিলের দাবিতে ‘স্বাধীনতা সচেতন নাগরিক সমাজের’ ব্যানারে আয়োজিত এক মানববন্ধনে এমন মন্তব্য করেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির।
শাহরিয়ার কবির বলেন, ‘এটাকে নিছক হলুদ সাংবাদিকতা বা অপসাংবাদিকতা বলা যাবে না, আঘাত এসেছে আমাদের স্বাধীনতার মর্যাদার উপরে, স্বাধীনতার ৫২ তম বার্ষিকীতে যেভাবে একটি খবর পরিকল্পিতভাবে তৈরি করা হয়েছে, পরিবেশন করা হয়েছে সেটার নিন্দা জানানোর ভাষা আমাদের জানা নেই। ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি, এই স্বাধীনতাকে অবমূল্যায়ন করবে, কটাক্ষ করবে, উপহাস করবে এমন স্বাধীনতা কোন নাগরিকের থাকতে পারে না।’
তিনি আরো বলেন, ‘৩০ লক্ষ শহীদ নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন তিনবারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তখনো আমরা বলেছিলাম যথেষ্ট হয়েছে। শহীদের সংখ্যা নিয়ে, বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা নিয়ে, আমাদের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব নিয়ে যারা প্রশ্ন তুলবে, কটাক্ষ করবে, উপহাস করবে তাদেরকে কঠোরভাবে আইনের আওতায় আনতে হবে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের স্বীকৃত ইতিহাস নিয়ে যারা প্রশ্ন তুলবে তাদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের শাস্তির আওতায় আনার জন্য আইন মন্ত্রণালয়কে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান শাহরিয়ার কবীর।’
মানববন্ধনে ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান বলেন, ‘আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশ অভাবনীয় উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিত। উন্নত দেশগুলোতে বাংলাদেশের নাম উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বারবার উচ্চারিত হয়। একই সঙ্গে একটি নির্বাচিত সরকারের নির্ধারিত মেয়াদ শেষ হয়ে নির্বাচন এগিয়ে আসছে। এ সময়ে নানা অপকৌশল শুরু হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া সাংস্কৃতিক অঙ্গনের মৌলিক দায়িত্ব। একটি বিশেষ পটভূমির উদ্দেশ্যে আমাদের স্বাধীনতাকে কটাক্ষ করা হয়েছে। যে সকল পত্রিকা এ সকল অপকর্মে যুক্ত আছে। তাদের বিরুদ্ধে সকলের সম্মিলিত সোচ্চার হওয়াই সময়ের দাবি। মহান স্বাধীনতার মর্যাদা সমুন্নত রাখতে আমাদের এ ধরণের প্রয়াস অব্যহত থাকবে।’
মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক রিয়াজ, চিত্রশিল্পী মনিরুজ্জামান, সংগীতশিল্পী শুভ্র দেব, অভিনয় শিল্পী আহসানুল হক মিনু, শাহেদ শরীফ খান, তানভীন সুইটি, ঊর্মীলা শ্রাবন্তী কর, আনজাম মাসুদ ও শামীমা তুষ্টি প্রমুখ। সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর, পীযুষ বন্দোপাধ্যায়, ঢাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি নিজামুল হক ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক জিনাত হুদা, ঢাবির শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক এম অহিদুজ্জামান কবি সাবেক সচিব কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী রফিকুল আলম, মনোরঞ্জন ঘোষাল সহ আরো অনেক সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর