• বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন
  • English

গাড়ির বাম্পারে আটকে নারীকে হিঁচড়ে নিয়ে যাওয়া সেই শিক্ষকের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২৩

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে গাড়ির নিচে আটকা পড়া এক নারীকে হিঁচড়ে নিয়ে যাওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক মোহাম্মদ আজহার জাফর শাহ মারা গেছেন। আজ শুক্রবার বিকেলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

আজহার জাফর শাহ একসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষক ছিলেন। ক্লাসসহ একাডেমিক কার্যক্রমে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে ২০১৮ সালে তাকে চাকরিচ্যুত করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

গত ২ ডিসেম্বর বেলা ৩টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের সামনে আজহার জাফর শাহর প্রাইভেট কারের ধাক্কায় সামনের মোটরসাইকেল থেকে পড়ে যান রুবিনা আক্তার নামের এক নারী। ওই নারী প্রাইভেট কারের বাম্পারে আটকে যান। তখন গাড়ি না থামিয়ে রুবিনাকে ওই অবস্থাতে রেখেই দ্রুতগতিতে চালিয়ে যান চালক জাফর শাহ। তাঁকে ধাওয়া করে নীলক্ষেত মোড়ের কাছে ধরে গণপিটুনি দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ। ওই নারী পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

ওই ঘটনায় নিহত রুবিনা আক্তারের পরিবারের পক্ষ থেকে করা মামলায় আজহার জাফর শাহকে গ্রেপ্তার করা হয়।

কারারক্ষী রফিকুল ইসলামসহ কয়েকজন এই সাবেক শিক্ষককে কারাগার থেকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। রফিকুল প্রথম আলোকে বলেন, দুপুরের পর আজহার জাফর শাহ অসুস্থ হয়ে পড়লে কারা কর্তৃপক্ষ তাঁকে হাসপাতালে নিতে বলে। এখানে আসার কিছুক্ষণ পর চিকিৎসক তাঁকে জানান, তিনি মারা গেছেন। কোনো অসুখ হয়েছিল কি না, জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কিছু বলতে পারেননি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পুলিশ বক্সের ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, বেলা ৩টা ৩৩ মিনিটে জাফর শাহকে কারাগার থেকে অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে আনা হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর